Skip to content

কুমিল্লায় আরডুইনোতে হাতেখড়ি | Dhaka Times

কুমিল্লার বাংলাদেশ আর্মি ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলোজিতে কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের নিয়ে আয়োজিত হলো বেসিক আরডুইনো কর্মশালা। মাকসুদুল আলম বিজ্ঞানাগার (ম্যাসল্যাব) এর এই আয়োজনে সহায়তা করে বাংলাদেশ বিজ্ঞান জনপ্রিয়করণ সমিতি (বাবিজস) ও বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্ক (বিডিওএসএন)।

শিক্ষার্থীরা রোবটিক্স গবেষণার পাশাপাশি বিভিন্ন ছোট সমস্যা সমাধানের জন্য ইলেক্ট্রনিক্সের বহুল পরিচিত কিট আরডুইনো ব্যবহার করে থাকে । বর্তমান সময়ে রোবটিক্স কিংবা প্রোগ্রামবেজ প্রজেক্ট তৈরির ক্ষেত্রে আরডুইনো ডেভেলপমেন্ট কিটটি ক্রমশ জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। সারা দিনের প্রায় ৭ ঘণ্টাব্যাপী এই কর্মশালায় হাতে-কলমে দেখানো হয়েছে কীভাবে এই ওপেনসোর্স হার্ডওয়্যারটি কাজ করে।

কুমিল্লার বিভিন্ন কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের মোট ৩৩ জন শিক্ষার্থী এই কর্মশালায় অংশ নেয়।

উপস্থিত শিক্ষার্থীদের আটটি গ্রুপে ভাগ করে আরডুইনো পিন কনফিগারেশন , মাইক্রোকন্ট্রোলার, বেসিক ইলেকট্রনিক্স, লেড জ্বালানো নিয়ন্ত্রন, ডিজিটাল পিনের ব্যবহার, এনালগ পিনের ব্যবহার ,পালস উইথ মডুলেশন (পিডাবলুএম), টেমপারেচার সেন্সর , সোনার সেন্সর , সারভো মোটর , পুশ বাটন এবং পটেনশিওমিটারের ব্যবহার শেখানো হয়।
মোট ১০ টি বেসিক প্রোজেক্টের সাথে অংশগ্রহণকারীদের পরিচিত করা হয়। প্রতিটি ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের কাছে লজিক এবং কোডগুলিও সঙ্গে সঙ্গে ব্যাখ্যা করা হয়েছে।  বাবিজস ও বিডিওএসএনের একাডেমিক সদস্যগণ কর্মশালাটি পরিচালনা করেন।

কর্শালার অভিজ্ঞতা নিয়ে বাংলাদেশ আর্মি ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলোজির শিক্ষার্থী সাইফুল আলম  জানান, ‘আরডুইনো দিয়ে সারা বিশ্বে বিভিন্ন রকম দৈনন্দিন জীবনের সমস্যা সমাধান করা হচ্ছে। এটা খুব ছোট কিন্তু সহজে ব্যবহারযোগ্য। নিজের হাতে এখানে এটার ব্যবহার শিখতে পাওয়া ছিল এক নতুন অভিজ্ঞতা।’

বাংলাদেশে ইন্টারনেট অব থিংসকে(আইওটি) জনপ্রিয় করার জন্য এই কর্মশালা আয়োজন করা হয়েছে বলে জানান বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্কের প্রোগ্রাম কোঅর্ডিনেটর মোশাররফ হোসেন টিপু।

তিনি আরও জানান ভবিষ্যতে সারাদেশে আরও বেসিক আরডুইনো কর্মশালা আয়োজিত হবে এবং ইন্টারনেট অব থিংস নিয়ে তাদের বিশাল কর্মপরিকল্পনা আছে, যা খুব দ্রুত ঘোষণা করা হবে। পরবর্তী আরডুইনো কর্মশালা ২৮ জুলাই ঢাকার ডেফোডিল ইন্টারন্যাশনাল বিশ্ববিদ্যালয়ে আয়োজিত হবে।

ঢাকার এই কর্মশালায় কম্পিউটার প্রোগ্রামিং-এর ধারণা আছে এবং আরডুইনোতে আগ্রহী যে কেউ অংশ নিতে পারবে। অংশগ্রহণকারীদের ৪০০ টাকা নিবন্ধন ফি দিয়ে দিনব্যাপী এই কর্শাশালায় অংশ নিতে হবে।

 

Published on Dhaka Times