৩য় রাধাগোবিন্দ চন্দ্র স্মারক বক্তৃতা

আজ অনুষ্ঠিত হয়েছে ৩য় রাধাগোবিন্দচন্দ্র স্মারক বক্তৃতা। “সুপারনোভা: ব্রহ্মাণ্ডের প্রদীপ” শিরোনামে এই পাবলিক লেকচারটিতে কথা বলেছেন ড. সৈয়দ আশরাফ উদ্দিন। ড. সৈয়দ আশরাফ উদ্দিন চীনের পার্পল মাউন্টেন অবজারভেটরিতে প্রেসিডেন্টস ইন্টারন্যাশনাল ফেলো হিসেবে কর্মরত আছেন। তিনি সাম্প্রতিক সময়ের গুরুত্বপূর্ণ একটি প্রকল্প, ডার্ক এনার্জি সার্ভেতে কাজ করছেন। বাংলাদেশ বিজ্ঞান জনপ্রিয়করণ সমিতির (এসপিএসবি) আয়োজনে এবং বাংলাদেশ অ্যাস্ট্রোনমিক্যাল সোসাইটি ও ইউনিভার্স অ্যাওয়ারনেসের সহযোগিতায় বিকেল ৪টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মাসি লেকচার থিয়েটারে এটি অনুষ্ঠিত হয়।

মহাবিশ্বে কোথাও কোথাও হঠাৎ করেই জ্বলে উঠে সুপারনোভা। তারকাদের এই বিস্ফোরণ একটি গ্যালাক্সির সামগ্রিক উজ্জ্বলতাকেও হার মানায়। বিশেষ এক ধরনের সুপারনোভা ব্যবহার করে জ্যোতির্বিদরা আবিষ্কার করেন যে, আমাদের মহাবিশ্বের প্রসারণ বেগ ত্বরিত হচ্ছে। এই ত্বরিত প্রসারণের কারণ কী, তা এখনো অজানা। সাম্প্রতিক পর্যবেক্ষণ বলছে যে, একটি অজানা ধ্রুব শক্তি, যা ডার্ক এনার্জি নামে পরিচিত,এই ত্বরণের কারণ। কিন্তু এই অজানা শক্তির মাত্রা পদার্থবিজ্ঞানের সাথে সঙ্গতিপূর্ণ নয়। সুপারনোভার আদর্শ উজ্জ্বলতাকে কাজে লাগিয়ে এবং মহাবিশ্বের প্রসারণের ইতিহাস বিস্তারিত ভাবে জেনে, মহাবিশ্বের ত্বরিত প্রসারণের কারণ জানা যাবে। এই বিষয়গুলো উঠে এসেছে আজকের বক্তৃতায়। পাশাপাশি সুপারনোভার গঠন ও বিবর্তন, পৃথিবী থেকে সুপারনোভা খুঁজে বের করার পদ্ধতি, একাজে ব্যবহৃত টেলিস্কোপ, বর্তমান গবেষণা, আমাদের মহাবিশ্বের ভবিষ্যৎ ইত্যাদি নিয়ে আলোচনা করেন ড. আশরাফ। এছাড়া তিনি দর্শকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তরও দেন।

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের তাত্ত্বিক পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ও বিভাগীয় প্রধান ড. আরশাদ মোমেন এবং বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের তড়িৎকৌশল বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ও এসপিএসবির সাধারণ সম্পাদক ড. ফারসীম মান্নান মোহাম্মদী। অনুষ্ঠানের শুরুতে জ্যোতির্বিদ রাধাগোবিন্দ চন্দ্রের জীবনী পাঠ করা হয়। এরপর ড. ফারসীম কথা বলেন রাধাগোবিন্দ চন্দ্র স্মারক বক্তৃতার ইতিকথা নিয়ে। পাশাপাশি তিনি দর্শকদের সাথে আজকের বক্তা ড. সৈয়দ আশরাফ উদ্দিনকে পরিচয় করিয়ে দেন।

বাংলাদেশ বিজ্ঞান জনপ্রিয়করণ সমিতি উপমহাদেশের অন্যতম সফল জ্যোতির্বিদ রাধাগোবিন্দ চন্দ্রের জীবন এবং জ্যোতির্বিজ্ঞানে তাঁর অসাধারণ কাজের স্মরণে ২০০৯ সাল থেকে আয়োজন করে আসছে এই বক্তৃতাটি। এর দ্বিতীয় পর্বটি অনুষ্ঠিত হয়েছিল ২০১১ সালে।

আয়োজনটি সমন্বয় করেছে এসপিএসবির নাফিস ওয়াহাব নিটোল ও আফরিনা আসাদ মেঘলা। রাধাগোবিন্দ চন্দ্রের জীবনী পাঠ করেছে ইসমত জাহান। উপস্থাপনা করেছে নায়লা রওনক।

Comments

comments

This entry was posted in . Bookmark the permalink.