চিলড্রেন সায়েন্স ওয়ার্ল্ড ২০১৬: নোয়াখালী

নোয়াখালীর অরুণ চন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয়, নোয়াখালী উচ্চ বিদ্যালয় এবং নোয়াখালী ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ে ৬ জুন অনুষ্ঠিত হয়েছে চিলড্রেন সায়েন্স ওয়ার্ল্ডের শেষ তিনটি পর্ব।

Artificial Intelligence: Future of the Computing বিষয়টি নিয়ে অরুণ চন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয়ে আলোচনা করেন নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) তথ্য ও যোগাযোগ প্রকৌশল বিভাগের শিক্ষক মোঃ সাইফুর রহমান। কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তা কী, কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন যন্ত্র তৈরি করা, সেসব যন্ত্র কীভাবে কাজ করে, সিগন্যাল এবং ইমেজ প্রসেসিং, বর্তমানে বিভিন্ন অপারেটিং সিস্টেম ও সফটওয়্যারে কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তার ব্যবহার, কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন রোবট ও অন্যান্য ডিভাইস ব্যবহার করে বিভিন্ন ধরণের কাজ সহজে ও দ্রুত কীভাবে করা যায় – এমন বেশি কিছু বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হয় এতে।

নোয়াখালী উচ্চ বিদ্যালয়ে Computers: Shaping the Future of the World বিষয়টি নিয়ে কথা বলেন নোবিপ্রবির একই বিভাগের শিক্ষক মোঃ আমজাদ হোসেন। কম্পিউটার কীভাবে গত শতাব্দী থেকে ধীরে ধীরে পৃথিবীর চেহারা বদলে দিচ্ছে, বর্তমানে দৈনন্দিন জীবনের বিভিন্ন ক্ষেত্রে কম্পিউটারের ব্যবহার এবং ভবিষ্যৎ পৃথিবীতে কম্পিউটারের ভূমিকা কেমন হতে পারে, এ বিষয়গুলো নিয়ে এতে আলোচনা করা হয়।

শেষ পর্বে Computers: A Machine beyond Imagination বিষয়টি নিয়ে নোয়াখালী ইউনিয়ন হাই স্কুলে আলোচনা করেন নোবিপ্রবির কম্পিউটার বিজ্ঞান ও টেলিকমিউনিকেশন প্রকৌশল বিভাগের শিক্ষক মোঃ ইয়াসিন কবির।

প্রতিটি আয়োজনেই শিক্ষার্থীরা লেকচারের পর প্রশ্ন করেছে। বুদ্ধিদীপ্ত প্রশ্নের জন্য ছিল পুরস্কার। স্কুলগুলোতে প্রায় ৩০০ শিক্ষার্থী আয়োজনগুলোতে অংশ নেয়।

আয়োজনের শেষে স্কুলের প্রধান শিক্ষকবৃন্দের হাতে ভেন্যু স্মারক তুলে দেয়া হয়।

এসপিএসবির পক্ষে আয়োজনগুলো সমন্বয় করেন শিবলী বিন সারওয়ার ও তানভীরুল ইসলাম।

শিক্ষার্থীদের মাঝে বিজ্ঞানকে জনপ্রিয় করতে বাংলাদেশ বিজ্ঞান জনপ্রিয়করণ সমিতি (এসপিএসবি) যে নানা আয়োজন করে থাকে তার একটি হচ্ছে জাপানের বিজ্ঞান সংগঠন এনপিও সায়েন্স ফোরাম ২১ এর সঙ্গে যৌথভাবে আয়োজিত চিলড্রেন সায়েন্স ওয়ার্ল্ড (সিএসডাব্লিউ)। আয়োজনটিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, গবেষক এবং বিজ্ঞানীরা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বক্তৃতা দেন। বিগত বছরগুলির ধারাবাহিকতায় সারাদেশে এবার মোট ১০ টি সিএসডাব্লিউ আয়োজন করা হয়েছে।

Comments

comments

This entry was posted in . Bookmark the permalink.