আইজেএসও দলের সংবর্ধনা এবং এসপিএসবির চতুর্দশ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী

গত ২৫ ডিসেম্বর ছিল বাংলাদেশ বিজ্ঞান জনপ্রিয়করণ সমিতির চতুর্দশ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। একই দিনে ঢাকার বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হয় এবছর আন্তর্জাতিক জুনিয়র সায়েন্স অলিম্পিয়াডে ব্রোঞ্জ পদকজয়ী বাংলাদেশ দলের সংবর্ধনা। অনুষ্ঠানটি শুরু হয়ে বিকেল ৪টায়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশনের সাবেক গবেষক, বিজ্ঞানী ড. রেজাউর রহমান, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক এবং বাংলাদেশ আইজেএসও টিমের দলনেতা ড. ফারসীম মান্নান মোহাম্মদী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাপ্লায়েড কেমিস্ট্রি অ্যান্ড কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. নূরুজ্জামান খান, বাংলাদেশ বিজ্ঞান জনপ্রিয়করণ সমিতির সহসভাপতি মুনির হাসান এবং বাংলাদেশ গণিত দলের হয়ে আন্তর্জাতিক গণিত অলিম্পিয়াডে ব্রোঞ্জ পদক বিজয়ী নাজিয়া চৌধুরী।

ফুল দিয়ে বাংলাদেশ দলকে শুভেচ্ছা জানানো হয় এবং উপহারসামগ্রী তুলে দেয়া হয়। বাংলাদেশ দলের সদস্যরা এরপর দক্ষিণ কোরিয়ায় থাকাকালীন সময় নিয়ে এবং আইজেএসওতে তাদের ফলাফল নিয়ে নিজেদের অভিজ্ঞতা বর্ণনা করে। বক্তারা বাংলাদেশ দলকে প্রথম বছরেই ভালো ফলাফলের জন্য অভিনন্দন জানান। পাশাপাশি বিশ্বমঞ্চে অন্যান্য দেশের প্রতিযোগীদের সাথে লড়াইয়ের জন্য আরো ভালোভাবে যে প্রস্তুতি নিতে হবে, সেটাও স্মরণ করিয়ে দেন।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ বিজ্ঞান জনপ্রিয়করণ সমিতি ও বাংলাদেশ ফ্রিডম ফাউন্ডেশনের যৌথ উদ্যোগে চলতি বছর ২০ আগস্ট দেশে প্রথম বাংলাদেশ জুনিয়র সায়েন্স অলিম্পিয়াড অনুষ্ঠিত হয়। অলিম্পিয়াডে বিজয়ীদের পর্যায়ক্রমিক ক্যাম্পের মাধ্যমে নির্বাচিত হয় বাংলাদেশ দলের ছয় সদস্য। দলের সদস্যরা হলো ফয়জুর রহমান আইডিয়াল স্কুলের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী তাহমিদ মোসাদ্দেক, বগুড়ার আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন পাবলিক স্কুল ও কলেজের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী ফারহান রওনক, স্যার জন উইলসন স্কুলের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী ফারদীম মুনির, ঢাকা রেসিডেন্সিয়াল মডেল কলেজের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী রুবাইয়্যাত ইকোলো, ভিকারুননিসা নূন স্কুল ও কলেজের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী সালসাবিল আশরাফ ও এসএফএক্স গ্রিন হেরাল্ড স্কুলের অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থী শামশাদ এরাম। এদের মধ্যে ফারহান ব্রোঞ্জ পদক লাভ করেছে।

Comments

comments

This entry was posted in . Bookmark the permalink.