সায়েন্স অলিম্পিয়াড ২৭ আগস্ট, সেপ্টেম্বরে বিজ্ঞান কংগ্রেস

দেশে দ্বিতীয়বারের মতো বিজ্ঞানের সবচেয়ে বড় প্রতিযোগিতা জুনিয়র সায়েন্স অলিম্পিয়াড অনুষ্ঠিত হবে ২৭ আগস্ট। এছাড়াও চতুর্থবারের মতো ২৩ ও ২৪ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হবে ‘শিশু-কিশোর বিজ্ঞান কংগ্রেস ২০১৬’।

রাজধানীর টিচার্স ট্রেনিং কলেজে সায়েন্স অলিম্পিয়াড এবং ফার্মগেটের এশিয়া প্যাসিফিক ইউনিভার্সিটিতে অনুষ্ঠিত হবে শিশু-কিশোর বিজ্ঞান কংগ্রেস।

শনিবার রাজধানীর বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্রে আয়োজন নিয়ে বাংলাদেশ বিজ্ঞান জনপ্রিয়করণ সমিতি (এসপিএসবি) এবং বাংলাদেশ ফ্রিডম ফাউন্ডেশন (বিএফএফ) সংবাদ সম্মেলন করে আয়োজন সম্পর্কে বিস্তারিত জানায়।

JSO_SPSB_TECHSHOHOR
সংবাদ সম্মেলনে এসপিএসবি সভাপতি ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল লিখিত বক্তব্যে কংগ্রেস ও সায়েন্স অলিম্পিয়াডের বিস্তারিত তুলে ধরেন।

তিনি জানান, বিজ্ঞান কংগ্রেসে প্রাইমারি, জুনিয়র ও সিনিয়র বিভাগে ক্ষুদে বিজ্ঞানীরা বৈজ্ঞানিক নিবন্ধ, বিজ্ঞান প্রকল্প ও পোস্টার প্রদর্শনের মাধ্যমে নিজেদের ধারণা তুলে ধরবে।

গত তিন বছর থেকে দেশে বিজ্ঞান কংগ্রেস ও বিজ্ঞান ক্যাম্প করা হচ্ছে। যেখানে সারা দেশের ক্ষুদে বিজ্ঞানীরা অংশ নিতে পারে। এবারও দুই দিনব্যাপী এই আয়োজন হবে। মূলত বিজ্ঞানের প্রতি শিক্ষার্থীদের আগ্রহী করে তুলতেই এমন আয়োজন করা হয়ে থাকে বলে জানান তিনি।

বিজ্ঞানের মতো বিষয়ে পৃষ্ঠপোষকতা করতে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান অনাগ্রহী জানিয়ে মুহম্মদ জাফর ইকবাল বলেন, সবসময় যে সবার থেকে সমান সহযোগিতা পাই তা না। একটা কনসার্ট করলে দেখা যায় অনেক স্পন্সর পাওয়া যায়। যখন ছেলে-মেয়েদের জন্য বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির জন্য কিছু করি তখন আর কাউকে পাওয়া যায় না। তাই সবাইকে এসব ক্ষেত্রে পৃষ্ঠপোষকতা করার আহ্বান জানান তিনি।

সায়েন্স অলিম্পিয়াড থেকে আন্তর্জাতিক জুনিয়র অলিম্পিয়াডের জন্য বাংলাদেশ থেকে দল নির্বাচন করা হবে।

এছাড়াও বিজ্ঞান কংগ্রেস থেকে ৪০ জন শিক্ষার্থীকে নির্বাচন করে পরে ঢাকায় আয়োজন করা হবে চতুর্থ জগদীশ বসু বিজ্ঞান ক্যাম্প।

আয়োজকদের পক্ষ থেকে জানানো হয়, বর্তমানে দুটি ক্যাটাগরিতে বিডিজেএসও এর নিবন্ধন করা হচ্ছে। ষষ্ট থেকে অষ্টম শ্রেণীর শিক্ষার্থীরা জুনিয়র ক্যাটাগরি এবং নবম-দশম-একাদশ শ্রেণীর শিক্ষার্থীরা (যাদের জন্ম ১ জানুয়ারি ২০০১ এর পর) সেকেন্ডারি ক্যাটাগরিতে অংশ নিতে পারবে।

এছাড়াও অনলাইনে নিবন্ধন করা যাবে এই ঠিকানায়

মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের জন্য আন্তর্জাতিক জুনিয়র সায়েন্স অলিম্পিয়াড শুরু হয় ২০০৪ সালে। এবার ইন্দোনেশিয়াতে হবে ত্রয়োদশ আয়োজন। ২০১৩ সালে ভারতে অনুষ্ঠিত দশম আন্তর্জাতিক জুনিয়র সায়েন্স অলিম্পিয়াডে আইজেএসওর সদস্যপদ লাভ করে এসপিএসবি।

গতবছর কোরিয়ায় অনুষ্ঠিত ১২তম আইজেএসওতে বাংলাদেশ দলের ৬ সদস্য যোগ দেয়। এ বছরও ৬ জন যোগ দেবে বলে আশা করছে আয়োজকরা।

আয়োজনের বিস্তারিত জানা যাবে এই ঠিকানায় কিংবা ফেইসবুকে

বাংলাদেশ জুনিয়র সায়েন্স অলিম্পিয়াডের ইন্টারনেট পার্টনার হিসাবে রয়েছে ডোজ ইন্টারনেট এবং স্যোসাল মিডিয়া পার্টনার হিসাবে রয়েছে ক্রো-ল্যাব।

সংবাদ সম্মেলনে আরও বক্তব্য দেন এসপিএসবি সহ-সভাপতি মুনির হাসান, বিএফএফ নির্বাহী পরিচালক সাজ্জাদুর রহমান, বিশিষ্ট বিজ্ঞানী ড. রেজাউর রহমান, ডোজ ইন্টারনেটের স্ট্যাটেজিক বিজনেস ইউনিটের প্রধান জ্যোতি আগারওয়াল।

Comments

comments